চৌদ্দগ্রামে খালের পানিতে প্রাণ গেলো স্থানীয় বিএনপি নেতা সহ ২ জনের

375

চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি : কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে খালের পানিতে ‘গায়েবী টানে’ দুইজন নিহত হয়েছেন। রোববার বেলা সাড়ে ১১টার সময় উপজেলার মুন্সিরহাট ইউনিয়নের ফেলনা গ্রামের পূর্ব-উত্তর পাশে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন; কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপি নেতা আরিফুর রহমান(৭০) এবং একই গ্রামের পার্শ্ববর্তী বাড়ির মৃত আবদুর রশিদের পুত্র দিনমজুর মানিক হোসেন(৪২)।

এঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন। এরমধ্যে গুরুতর আহত জাকির হোসেনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী আবদুল আউয়াল জানান, তার জমিতে বড় ভাই আরিফুর রহমান ও তিন শ্রমিক নিয়ে কচুরী পানা পরিস্কার করতে যান। কাজ শেষে বেলা সাড়ে ১১টার সময় ফেরার পথে তিনি তিন খালের মধ্য দিয়ে পার হন। কিন্তু মানিক হোসেন খালের মাঝখানে এসে বলে ‘আমি মরে যাচ্ছি’। এক কথা শুনে আরিফুর রহমান তাকে উদ্ধার করতে যায়। পরে তিনিও এক অবস্থায় বলেন ‘আমাকে বাঁচাও’। তাৎক্ষণিক আমার চিৎকার শুনে আশ-পাশের লোকজন এগিয়ে এসে গুরুতর আহত অবস্থায় দুইজনকে উদ্ধার করি। উদ্ধার করা দুইজনকে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষণা করেন। দুইজনের মৃত্যুর খবরে আশ-পাশের লোকজনের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। উৎসুক মানুষকে তাদেরকে একনজর দেখতে ভীড় জমায়।বাদ এশা তাদের জানাযার নামায অনুষ্ঠিত হয়।

জানাযায় উপস্থিত ছিলেন চৌদ্দগ্রাম উপজেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক কামরুল হুদা ও জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি কাজী নাসিমুল হক।

উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব ইঞ্জিনিয়ার শাহ আলম কর্তৃক রোববার বিকেল ৬.২৬টায় পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, বিএনপি নেতা আরিফুর রহমানের মৃত্যুতে উপজেলা বিএনপির পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন উপজেলা বিএনপির আহবায়ক মোঃ কামরুল হুদা। শোক বার্তায় কামরুল হুদা বলেন “আরিফুর রহমান ছিলেন বিএনপির একজন নিবেদিত কর্মী ও সংগঠক। তিনি একজন স্বচ্ছ রাজনীতিবীদ ছিলেন। আরিফুর রহমানের মৃত্যুতে বিএনপির অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। আমি মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি ও তার পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি”

নিহত দুইজনের বাড়িতে স্বজনদের কান্নায় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়েছে। নিহত আরিফুর রহমান তিন ছেলে ও এক মেয়ে সন্তানের জনক। চৌদ্দগ্রাম বাজারে তার একটি দোকান রয়েছে। অপরদিকে দিনমজুর মানিক হোসেন চার মেয়ে ও এক ছেলে সন্তানের জনক। তাদের মৃত্যুতে সন্তানদের শান্তনা দেয়ার ভাষা কারো নেই।

LEAVE A REPLY