চৌদ্দগ্রাম পৌর বিএনপি’র আহবায়ক জিএম তাহের পলাশীর বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ

305

স্থানীয় রিপোর্টারঃ চৌদ্দগ্রাম পৌর বিএনপি’র আহবায়ক জিএম তাহের পলাশীর বিরুদ্ধে শোনা যাচ্ছে নানা অনিয়মের অভিযোগ।শুধু তাই নয় এই নেতাকে নিয়ে দলের ভিতরে সৃষ্টি হয়েছে নানা কোন্দল।
কখনো নিজেকে কেন্দ্রীয় নেতা বলে দাবি করা কখনো জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি আবার কখনো চৌদ্দগ্রাম উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি হিসেবে নিজেকে জাহির করার চেষ্টায় লিপ্ত হয়ে দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করার অভিযোগ ও উঠে এসেছে এই নেতার বিরুদ্বে।

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা বিএনপি’র বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দর মুখে শোনা যাচ্ছে এই নেতাকে নাকি ২/৫হাজার টাকার বিনিময়ে দলের বিরুদ্ধে যে কোন কাজ করানো যায়। তারা জানায়, টাকার বিনিময়ে তিনি সব কিছু করতে রাজি।দলের নাম ভাঙ্গিয়ে বিভিন্ন জায়গায় ডোনেশনের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগ ও উঠে এসেছে তার বিরুদ্ধে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সূত্রে জানা যায়, যখনি চৌদ্দগ্রাম উপজেলা বিএনপি সুশৃঙ্খল ভাবে তাদের দলীয় কর্মকান্ড চালিয়ে যান ঠিক তখনি তিনি দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে মরিয়া হয়ে উঠেন।তার ২ ভাই সামছু ও আব্দুর হক পৌর যুবলীগের রাজনীতিতে সমৃক্ত এবং তার বড় এক ভাই জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে যুক্ত। আর ছোট ভাই জামায়াতের রাজনীতিতে সমৃক্ত থাকায় তাদের সাথে লিয়াজো করে তিনি দলকে ক্ষতিগ্রস্ত করছেন বলে উল্লেখযোগ্য তথ্যে জানা যায়।তার বিরুদ্ধে পৌরসভায় কোন নেতা-কর্মী কথা বললে তিনি তার ভাইয়ের লিলিয়ে দেন তাদের বিরুদ্ধে। যার কারনে পৌরসভায় তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বলার সাহস পান না।

অসংখ্য অভিযোগে অভিযুক্ত বির্তকিত এই নেতার বিরুদ্ধে রয়েছে কয়েকডজন অভিযোগ। ইতিমধ্যে জেলা ঘোষিত পৌর কমিটিকে বৃদ্ধাঙ্গলী দেখিয়ে উপজেলা কমিটিতে না থেকেও চৌদ্দগ্রামের বাতিসা ইউনিয়নে একটি কাগুজে কমিটি ঘোষনা করে ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দেয় অথচ চৌদ্দগ্রাম উপজেলা বিএনপি ইতিমধ্যে সবগুলো ইউনিয়নে ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে ওয়ার্ড কমিটিগুলো সম্পন্ন করেছে।

সুত্র : মুক্তির লড়াই

http://www.muktirlaray.com/2017/07/blog-post_82.html?m=1

LEAVE A REPLY