দুবাই বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের উদ্যোগে সিআইপিদের সংবর্ধনা

251

ইউএই প্রতিনিধি :
বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য সরকার ২০১৫ সালের জন্য বৈধ চ্যানেলে সর্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা প্রেরণকারী বাণিজ্যিক গুরুত্বপুর্ণ ব্যক্তি সিআইপি হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে যারা নির্বাচিত হয়েছেন তাদের সম্মানার্থে সংবর্ধনার আয়োজন করে দুবাইয়ে বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল । শনিার সন্ধ্যায় দুবাই ক্রাউন প্লাজা হোটেল বলরুমে এ সংবর্ধনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

দুবাই বিজনেস কাউন্সিলের সিনিয়র সহ-সভাপতি আইয়ুব আরী বাবুলের সভাপতিত্বে ও যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ এর সঞ্চালনায় সংবর্ধনায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ডা.মোহাম্মদ ইমরান। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দুবাই ও উত্তর আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল এস বদিরুজ্জামান, কমার্শিয়াল কাউন্সেলর ড. রফিক আহমেদ। সংবর্ধিত সিআইপির মধ্যে বক্তব্য রাখেন আল হারামাইন পারফিউম গ্র“প আব কোম্পানীর চেয়ারম্যান, দুবাই বিজনেস কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব মোহাম্মদ মাহতাবুর রহমান নাসির, রাক রিয়েল এস্টেটের মোহাম্মদ আকতার হোসাইন, টোকিও সেট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোসাম্মৎ জেসমিন আক্তার, স্টারগোল্ড গ্রুপের আবুল কালাম, ,মোহাম্মদ সেলিম,আবুধাবীর ওমর ফারুক।
এছাড়াও আরো বক্তব্য টোকিও সেট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, দুবাই বিজনেস কাউন্সিলের সহ-সভাপতি মাহাবুবুল আলম মানিক, দুবাই বিজনেস কাউন্সিলের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ রাজামল্লিক, লেভার সচিব একেএম মিজানুর রহমান, জনতা ব্যাংকের সিইও ইসমাঈল হোসেন,সৈয়দ আহাদ ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট ক্যাপ্টেন সৈয়দ আবু আহাদ, দূতাবাস ও কনস্যূলেটের কর্মকর্তাবৃন্দ, বাংলাদেশি কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক ও বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান প্রবাসী ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে বলেন, আপনারা দেশের সুনাম ও সম্মানবৃদ্ধিতে যেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তেমনিভাবে দেশের উন্নয়নের স্বার্থে আরো ব্যাপকভাবে রেমিটেন্স পাঠান এবং বিনিয়োগ করুন। বর্তমান সরকার প্রবাসীদের এ বিষয়গুলো গুরুত্বের সাথে বিবেচনায় নিয়ে মূল্যায়নে যথেষ্ট সচেতন রয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক নির্বাচিত ১২ জন সিআইপির মধ্যে ৬ জন্যই আরব আমিরাতের।

LEAVE A REPLY