নিউ ইয়র্কে বিদ্বেষমূলক হামলার শিকার হলেন বাংলাদেশি নাগরিক

174

বৃহস্পতিবার রাতে জ্যাকসন হাইটস সংলগ্ন সিক্সটি সিক্স স্ট্রিটের নর্দার্ন বুলভার্ড এলাকায় যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় পার্টির সহ-সভাপতি আব্দুর রহমানের (৬২) উপর এ হামলা হয় বলে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সমন্বয়কারী আব্দুন নূর ভূঁইয়া জানান।

নূর ভূঁইয়া বলেন, “সন্ধ্যায় মসজিদ থেকে বাসায় ফেরার পথে দুই শ্বেতাঙ্গ ও এক ভারতীয় তাকে (রহমান) গালমন্দ করতে থাকে। এক পর্যায়ে মুখে আর মাথায় কিল-ঘুষি মেরে রক্তাক্ত করে। হামলার সময় ওরা বলছিল- ‘ইউ মুসলিম, গো ব্যাক টু ইউর কান্ট্রি’।”

আহত আব্দুর রহমান পুলিশকে ফোন করলে তারা ঘটনাস্থলে এসে তাকে এলমহার্স্ট হাসপাতালে নিয়ে যায়। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পরে এক ভারতীয়কে পুলিশ আটক করেছে বলে নূর ভূঁইয়া জানিয়েছেন।বাকিদের ধরতে চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় পুলিশ।

নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর নিউ ইয়র্কসহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্থানে অভিবাসী ও মুসলমানদের উপর এ ধরনের হামলার ঘটনা বেড়ে চলছে।প্রথম এক সপ্তাহের মধ্যে দুর্বৃত্তরা নিউ ইয়র্ক পুলিশ ও ট্রান্সপোর্টেশন অথরিটির (এমটিএ) দুই নারী কর্মকর্তা এবং এক কলেজ ছাত্রীর হিজাব খুলে নিয়ে তাদের গালমন্দ করে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে।

নিউ ইয়র্ক সিটির মেয়র বিল ডি ব্লাসিয়ো এ ধরনের ঘটনার জন্য ‘ট্রাম্প সমর্থকদের’ দায়ী করেছেন।হামলার শিকার নারী পুলিশ কর্মকর্তা অ্যামল এসোকারিকে নিয়ে গত মঙ্গলবার নিয়মিত ব্রিফিংয়ে ব্লাসিয়ো বলেন, নির্বাচনী প্রচারে ট্রাম্পের দেওয়া বক্তব্যের কারণেই ‘হেইট ক্রাইম’ বেড়েছে। “অবস্থার অবসানে ট্রাম্পকে কঠোর মনোভাব ব্যক্ত করতে হবে,” বলেন তিনি।

নিউ ইয়র্ক পুলিশের হেইট ক্রাইম ইউনিট জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর তিন সপ্তাহে নিউ ইয়র্কে বিদ্বেষমূলক হামলার ৪৪টি অভিযোগ পাওয়া গেছে, আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে যা দ্বিগুণেরও বেশি।

সুত্র : বিডি নিউজ

LEAVE A REPLY