নীতিমালা অনুযায়ী সঠিক সময়ে বাঁধের কাজ শেষ করতে হবে, সুনামগঞ্জে হাওর বাঁচাও আন্দোলনের পথ সভায় বক্তারা

15

সাইফ উল্লাহ, সুনামগঞ্জ

হাওর বাঁচাও আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির একটি প্রতিনিধি দল দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার দরগাপাশা ও পূর্ববীরগাঁও ইউনিয়নের বিভিন্ন বাঁধ পরিদর্শন শেষে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা ও পূর্ব বীরগাঁও ইউনিয় কমিটির উদ্যোগে দুটি পৃথক পথ সভায় অংশ নিয়েছেন।

প্রতিনিধি দল দুপুর ১২ টায় কাচিভাঙ্গা হাওর প্রকল্পের ৬ নং পিআইসি পরিদর্শন করেন। পরে দুপুরে হাওর বাঁচাও আন্দোলন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত ছয়হারা পয়েন্ট এ পথ সভায় অংশ গ্রহণ করেন।  

হাওর বাঁচাও আন্দোলন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি  রাধিকা রঞ্জন তালুকদারের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত পথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিজন সেন রায় বলেন, যারা হাওর রক্ষা বাঁধের কাজ করছেন তারাও এ এলাকার মানুষ, আমরা আশা করবো পিআইসি সঠিক সময়ে নীতিমালা অনুযায়ী বাঁধের কাজ শেষ করবেন। কারো গাফিলতির ফলে যদি ফসল হানি হয় তাহলে এর দায় পিআইসি, উপজেলা প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ডকে নিতে হবে। এবার ফসল হানি হলে আমরা ঘরে বসে থাকবনা, কৃষকদের সাথে নিয়ে আন্দোলন গড়ে তুলব। প্রয়োজনে ২০১৭ সালের মতো জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, ইউএন কার্যালয় এবং পানি উন্নয়ন বোর্ড কৃষকদের সাথে নিয়ে ঘেরাও করা হবে।

তিনি সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, কৃষকরা ধানের ন্যার্য মূল্য না পেয়ে কৃষি কাজ থেকে নিজকে সরিয়ে নিচ্ছে। এ বছর হাওরের অনেক জমি পতিত রয়েছে। বর্গা চাষীরা জমি করতে আগ্রহী হচ্ছেন না তাই কৃষকের ধানের ন্যায্য মূল্য দিতে হবে, কোন দালাল চক্র চাড়াই যাতে কৃষকরা সরকারের কাছে ধান বিক্রী করতে পারে সে ব্যবস্থা করতে হবে। কৃষকের উৎপাদিত অর্ধেক ধান মে মাসেই সরকারকে ক্রয় করতে হবে।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক সালেহীন চৌধুরী শুভ, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরানুল হক চৌধুরী, একে কুদরত পাশা, দরগাপাশা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রওশন খান সাগর, দক্ষিন সুনামগঞ্জ উপজেলা কমিটির সহ সভাপতি জিয়া উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল হক মিলন, সাংগঠনিক সম্পাদক সাংবাদিক আবু সাইদ, বাঁধ বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, শিমুল বাঁক ইউনিয়ন কমিটির আহ্বায়ক সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, দক্ষিন সুনামগঞ্জ উপজেলা কমিটির সক্রিয় সদস্য ও দরগাপাশা ইউনিয়ন কমিটির সদস্য সচিব সৈয়দ আসাদুজ্জামান, সমাজ সেবক হারুন মিয়া, ভমবমী বাজার কমিটির সহ সভাপতি সিতু মিয়া, সমাজ সেবক সালিক আহমদ, হিফজুর চৌধুরী, কামরুজ্জান সক্রিয় সদস্য প্রদীপ কুমার দাস ও শৈলেন্দ্র সূত্রধর প্রমুখ।

এর আগে বিকেলে পূর্ব বীরগাঁও ইউনিয়ন কমিটির উদ্যোগে বীলগাঁও পয়েন্টে এক পথ সভার আয়োজন করা হয়। পূর্ব বীল গাঁও ইউনিয়ন কমিটির আহ্বায়ক  মঞ্জুর আলম মালেকের সভাপতিত্বেও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদব ওবায়দুল হক মিলনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বাঁধ পরিদর্শন রিপোর্ট উপস্থাপন করেন, দক্ষিন সুনামগঞ্জ উপজেলা কমিটির সহ সভাপতি সাজ্জাদুর রহমান। সেখারে ইউনিয়নের পাঁচটি বাঁধের বাজেট এবং বর্তমান কাজের অবস্থা তুলে ধরা হয়। জানানো হয় বাঁগুলোর অবস্থা খুবই সুচনীয়। নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করেই কিছু কাজ করা হয়েছে। বাঁধের বিষয়ে সভায় আশঙ্খকা প্রকাশ করা হয়।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিজন সেন রায়, যুগ্ম সম্পাদক সালেহীন চৌধুরী শুভ, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরানুল হক চৌধুরী,কুদরত পাশা, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা কমিটির সহ সভাপতি জিয়া উদ্দিন, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক জিয়াউর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক সাংবাদিক আবু সাইদ,বাঁধ বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম,পূর্ব বীরগাঁও ইউনিয়ন কমিটির সদস্য সচিব রুহুল আমীন,সক্রিয় সদস্য শৈলেন্দ্র সূত্রধর প্রমুখ।


LEAVE A REPLY