প্রবাসী বাংলাদেশীদের স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে গবেষণায় সায়েদ উদ্দিনের ডক্টরেট ডিগ্রী লাভ

252

আরবিনা ইমরান, কুয়ালালামপুর থেকে:

মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের স্বাস্থ্যসেবার উপর গবেষণা করে আন্তর্জাতিক ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রী অর্জন করেছেন লক্ষীপুরের সায়েদ উদ্দিন।আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যায় এর বত্রিশতম কনভোকেশনে তাকে এ সম্মাননা দেয়া হয়। এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজবিজ্ঞান ও নৃ-বিজ্ঞানে স্নাতোকোত্তর সম্পন্ন করে গবেষণায় মন দেন সায়েদ উদ্দিন।বিষয়বস্তু হিসাবে বেছে নেন মালয়েশিয়ায় কর্মরত কয়েকলক্ষ প্রবাসী বাংলাদেশীদের স্বাস্থসেবা। তার দীর্ঘ সময়ের গবেষণায় উঠে এসেছে প্রবাসে থাকা বাংলাদেশীদের স্বাস্থ্য বিষয়ক নানা দিক।ডক্টরেট ডিগ্রী অর্জনের পর এক মন্তব্যে সায়েদ উদ্দিন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গবেষণার বিষয়বস্তু হিসাবে এ বিষয়টি বেছে নেয়ার জন্য শুরু থেকেই আমাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। মুলত প্রবাসে থাকা unnamedবাংলাদেশীদের জন্য কিছু করার তাগিদ থেকেই আমি এ বিষয়টি বেছে নিয়েছিলাম। আশা করি আমার গবেষণার মাধ্যমে প্রবাসীদের স্বাস্থ্যগত কিছু অজানা সমস্যা ও সমাধান উঠে আসবে। তার এ অর্জনের পেছন থেকে অনুপ্রেরনা দেয়ায় বাবা-মা, সহ-ধর্মীনি, বন্ধু-বান্ধব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশী যারা তাকে তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করেছেন তাদেরকে ধন্যবাদ জানান সায়েদ উদ্দিন।লক্ষীপুর ভবানিগঞ্জ এর চরমনসা গ্রামে ছোটকাল থেকে বেড়ে ওঠা সায়েদ উদ্দিন মৃত. নুরনবী চৌধুরী ও মা হোসনেয়ারা বেগমের সাত সন্তানের মধ্যে তৃতীয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে নোয়াখালি সরকার কলেজ থেকে সমাজবিজ্ঞান ও নৃ-বিজ্ঞান বিভাগে অনার্স এ মেধা তালিকায় তৃতীয় স্থান অধিকার করেন। একই কলেজ থেকে মাস্টার্স সম্পন্ন করে পাড়ি জমান মালয়েশিয়ার সনামধন্য আন্তর্জাতিক ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়ে।অধ্যায়ন রত অবস্থায় পোস্ট গ্রাজুয়েশন ছাত্রদের সংগঠনের দুবারের নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেন সায়েদ উদ্দিন।বর্তমানে আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ে খন্ডকালিন শিক্ষক হিসাবে কাজ করছেন তিনি।

LEAVE A REPLY