সালমান শাহ আত্মহত্যা করেনি, তাকে খুন করা হয়েছে, এক ভিডিও বার্তায় রুবী সুলতানা

130

৯০ দশকের সবচেয়ে আলোচিত নায়ক সালমান শাহর মৃত্যুকে আত্মহত্যা হিসেবে গণ্য করা হয়েছে এতদিন। কিন্তু দীর্ঘদিন পর একটি ভিডিও বার্তায় যুক্তরাষ্ট্রের পেনিসেলভিয়ায় বসবাসকারী একজন বাংলাদেশি নারী (নাম-রুবী সুলতানা) এর স্বীকারোক্তি থেকে জানা যায় যে- সালমান শাহ আত্মহত্যা করেনি, তাকে খুন করা হয়েছে। উক্ত নারীর স্বামীর প্ররোচনায় তার ভাইকে দিয়ে খুন করানো হয়েছিল নায়ক সালমান শাহকে। অতঃপর তার ভাইকেও খুন করা হয় এবং উক্ত নারীকেও খুনের হুমকি দেওয়া হয়- এসব কথা তিনি বলেছেন তার ভিডিও বার্তায়।

সালমান শাহের মায়ের নাম নীলা চৌধুরী এবং বাবার নাম কমর উদ্দিন। চিত্রজগতে প্রয়াত এক নায়ক সালমান শাহ নামে পরিচিত হলেও তার প্রকৃত নাম- শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন। অভিনয় জগতে তিনি পদার্পণ করেছিলেন ১৯৮৫ সালে। তিনি সে সময় শুধু মাত্র নাটক করতেন। অতঃপর ১৯৯৩ সালে অভিনেত্রী মৌসুমীর বিপরীতে কেয়ামত থেকে কেয়ামত সিনেমার মাধ্যমে তিনি বড় পর্দায় চলে আসেন। খুব অল্প সময়েই তিনি পৌঁছে যান জনপ্রিয়তার তুঙ্গে। কিন্তু হঠাৎ করেই ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাজধানী ঢাকায় বাস ভবনে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ পাওয়া যায়। ময়না তদন্ত রিপোর্টে এটিকে আত্মহত্যা বলে উল্লেখ করলেও, জনপ্রিয় এ নায়কের মৃত্যু রহস্যের ঘোর এখনও কাটেনি। অনেকেই তার মৃত্যুর জন্য আঙুল তোলেন তার স্ত্রীর দিকে। সালমান শাহের পরিবার থেকে তার স্ত্রী সামিরাসহ আরও বেশ কজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়। পরবর্তীতে এ মামলার কোনো সুরাহা হয়নি বিধায় সালমান শাহের মৃত্যু রহস্যের জট এখনও উন্মচিত হয়নি। এ যাবত সালমান সাহের মামলার শুনানি হয়েছে ১১ বার। সালমান শাহের মৃত্যুর পর পর অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছিলেন তার বাবা। অতঃপর ১৯৯৭ সালের ২৪ জুলাই সালমান শাহকে হত্যা করে হয়েছে অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন বাবা কমর উদ্দিন।

LEAVE A REPLY