ঋতু পরিবর্তনের সঙ্গে ত্বকের যত্নের ক্ষেত্রেও কিছু পরিবর্তন আনা জরুরি

140

শীতের মৌসুমে অতিরিক্ত এক্সফলিয়েশন একদমই উপযোগী নয়। এতে ত্বক স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা হারাবে। তাই ঋতু পরিবর্তনের সঙ্গে ত্বকের যত্নের ক্ষেত্রেও কিছু পরিবর্তন আনা জরুরি।
এই মৌসুমের শীতল বাতাস ত্বক অনেকটাই শুষ্ক করে ফেলে। তাই ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে উপযোগী ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। যদি প্রয়োজন পরে তাহলে দিনে বেশ কয়েকবার ত্বকে ময়েশ্চারাইজার লাগানো যেতে পারে। তবে কখনও অতিরিক্ত ভারী ময়েশ্চারাইজার বেছে নেওয়া উচিত হবে না। কারণ এতে ত্বক তেল তেলে ও চিটচিটে হয়ে যাবে এবং কালচেভাব দেখা দেবে। তাই ত্বকের ধরন বুঝে ময়েশ্চারাইজার বেছে নিতে হবে।
ফেইশল অয়েল এই সময় বিশেষভাবে উপযোগী। ত্বকে পুষ্টি জুগিয়ে আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করবে এই তেল। তাছাড়া হিমেল হাওয়া থেকে ত্বক সুরক্ষিত রেখে ত্বকের উজ্জ্বলতা বজায় রাখবে ত্বক উপযোগী তেল।

শীতে গরম পানি ব্যবহারের মাত্রা স্বাভাবিকের থেকে বেড়ে যায়। তবে গরম পানি ত্বকের আর্দ্রতা শুষে নেয় এবং ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতার মাত্রাও কমিয়ে আনে। তাই এই মৌসুমে গরম পানি নয় বরং কুসুম গরম পানি ব্যবহার করতে হবে। অতিরিক্ত গরম পানি ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন।

এসময় ত্বকের বাহ্যিক যত্নের পাশাপাশি ভিতর থেকেও যত্ন নেওয়া জরুরি। তাই খাদ্যতালিকায় প্রচুর ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার যুক্ত করতে হবে। বাদাম এবং মৌসুমি শাকসবজি ত্বকের জন্য দারুণ উপকারী। তাই প্রচুর শাকসবজি এবং পানি পান করতে হবে এই আবহাওয়ায়।

এই সময় ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়, অনেকের ক্ষেত্রে ত্বকে চামড়া ওঠার সমস্যাও দেখা দেয়। তাই অতিরিক্ত স্ক্রাবংয়ের সময় ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। স্ক্রাবিং করতে হলে ওটমিল এবং কফি পাউডারের সঙ্গে খানিকটা দুধের ক্রিম মিশিয়ে ঘরেই তৈরি করে নিতে পারেন এই মৌসুমের উপযোগী স্ক্রাবার।

LEAVE A REPLY