বাংলাদেশী পাসপোর্ট হতে নিয়ে যেসব দেশে ভিসা ছাড়াই যেতে পারবেন

791

ব্যাবসার কাজে বা ভ্রমণে দেশের বাইরে যাওয়ার সুযোগ আসলেই দুশ্চিন্তায় পড়তে হয় ভিসা নিয়ে। দূতাবাসে দৌড়াদৌড়ি, ভিসার জন্য অপেক্ষা- সবকিছুর ঝামেলা শেষ করে তবেই পাড়ি জমাতে হয় দেশের বাইরে।আপনারা জানেন কি এমন কিছু দেশ রয়েছে যেগুলোতে কেবল বাংলাদেশি পাসপোর্ট থাকলেই চলে যেতে পারবেন নিশ্চিন্তে ? শুধু পাসপোর্ট হাতে নিয়ে ভিসা ছাড়াই বাংলাদেশিরা ৫০টি দেশে যেতে পারবেন। তবে কয়েকটি দেশে পৌঁছানোর পর ভিসা করে নিতে হবে। আবার কয়েকটি দেশে যাওয়ার আগে প্রয়োজন হবে বিশেষ অনুমোদন।

বাংলাদেশী পাসপোর্ট হতে নিয়ে যেসব দেশে পৌঁছে ভিসা করতে হবে –
১। নেপাল (এক মাস থাকতে পরেবেন)
২। ভুটান
৩। মালদ্বীপ (এক মাস থাকতে পরেবেন)
৪। ইন্দোনেশিয়া (এক মাস থাকতে পরেবেন)
৫। বুরুন্ডি
৬। টোগো (সাত দিন থাকতে পরেবেন)
৭। কেপ ভার্দে
৮। কমোরোস
৯। মোজাম্বিক (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১০। নিকারাগুয়া (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
১১। জিবুতি (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১২। উগান্ডা
১৩। গিনি বিসাউ (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
১৪। মাদাগাস্কার (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
১৫। মাওরিতানিয়া
১৬। তিমরলেস্টে (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১৭। তুভালু (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১৮। আজারবাইজান (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১৯। ম্যাকাউ (এক মাস থাকতে পরেবেন)
২০। বলিভিয়া (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
যেসব দেশে বাংলাদেশি পাসপোর্ট থাকলে প্রয়োজন হবে না কোনও ভিসা-
১. বাহামাস (চার সপ্তাহ পর্যন্ত থাকতে পরেবেন)
২. বার্বাডোস (ছয় মাস থাকতে পরেবেন)
৩. ডোমিনিকা (ছয় মাস থাকতে পরেবেন)
৪. ফিজি (চার মাস থাকতে পরেবেন)
৫. গাম্বিয়া (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
৬. গ্রানাডা (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
৭. হাইতি (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
৮. জ্যামাইকা
৯. লেসোথো (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
১০. মালাওয়ি (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
১১. মাইক্রোনেশিয়া (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১২. সেইন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস
১৩. সেইন্ট ভিনসেন্ট অ্যান্ড দ্য গ্রানাডিনস (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১৪. ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো
১৫. ভানুয়াতু (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১৬. মন্টসেরাত (তিন মাস থাকতে পরেবেন)
১৭. টার্ক অ্যান্ড সিসেরো আইল্যান্ড (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১৮. ব্রিটিশ ভার্জিনিয়া আইল্যান্ড (এক মাস থাকতে পরেবেন)
১৯. মাক্রোনেশিয়া (এক মাস থাকতে পরেবেন)
২০. নিউয়ি (এক মাস থাকতে পরেবেন)

ভিসা লাগবে না তবে বিশেষ অনুমোদন লাগবে যেসব দেশে-
১. কিউবা (তিন মাস মেয়াদি টুরিস্ট কার্ড জোগাড় করতে হবে)
২. সামোয়া (দুই মাসের অনুমতিপত্র)
৩. সেচেলেস (একমাসের অনুমতিপত্র)
৪. সোমালিয়া (পৌঁছানোর দুইদিন আগে সেখানকার বিমানবন্দরে বিষয়টি জানিয়ে রাখতে হবে)
৫. শ্রীলংকা (ভ্রমণের জন্য ইলেকট্রনিক অনুমোদনপত্র, মেয়াদ এক মাস)
৬. লাওস (সরকারি কোনও সফরের নথিপত্র থাকলে ভিসা প্রয়োজন হবে না)

LEAVE A REPLY