সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে স্বামীর মৃত্যুশোকে স্ত্রীর আত্নহত্যা

17

সাইফ উল্লাহ, সুনামগঞ্জ :: জামালগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে স্বামীর মৃত্যু হলে, এই শোকে আত্মহত্যা করেছেন তার স্ত্রী। রোববার দুপুরে সাচনাবাজার ইউনিয়নের দুর্লভপুর গ্রামে একটি ভবনে জানালার থাইগ্লাস সংযুক্ত করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যান জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের নিপলু দাস (২৯)। তিনি ওই গ্রামের সত্যেন্দ্র দাসের ছেলে।

জামালগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক নূরুল ইসলাম জানান, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত নিপলু দাসের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে নিয়ে আসা হলে স্বামীর জন্য পাগলপ্রায় হয়ে যান স্ত্রী নিয়তি রাণী দাস (২৯)। পুলিশের ধারণা, স্বামীর মৃত্যুশোকে রাতের কোনো এক সময় ঘরের তীরের সাথে পরনের শাড়ি গলায় পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন নিয়তি। সোমবার ভোরে পরিবারের লোকজন তার ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ সকাল ৯টার দিকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠায়।

দুই মাস আগে নিপলু-নিয়তির বিয়ে হয়েছিল বলে জানান তিনি।রামপুর গ্রামের বাসিন্দা লিলু দাশ বলেন, মাত্র দুই মাস আগে নিপলু ও নিয়তির বিয়ে হয়। খুব সুখের সংসার ছিল তাদের। দুইজনই সব সময় হাসি খুশি থাকতো। কিন্তু বিদ্যুৎস্পৃষ্টে রোববার স্বামী মারা গেল আর সোমবার তার স্ত্রী আত্মহত্যা করলো। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।

LEAVE A REPLY