সুনামগঞ্জের ছাতকে পুলিশ-ডাকাত গুলি বিনিময়, নিহত এক

14

সাইফ উল্লাহ, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলায় গ্রেফতারকৃত ডাকাতকে নিয়ে পুলিশ অস্ত্র উদ্ধারে গেলে ডাকাতদলের অতর্কিত গুলিবর্ষন ও পুলিশের পাল্টা গুলিবর্ষণে এক ডাকাত গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছে। এ সময় ডাকাতদের গুলিতে ৫ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

নিহত ডাকাতের নাম মোঃ লক্ষণদ্দর আলী(৩০)। সে ছাতক উপজেলার সিংচাপুর ইউনিয়নের জিয়াপুর হবিবপুর গ্রামের মোঃ কলমদ্দর আলীর ছেলে। সে ১২টি ডাকাতি মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী।

রোববার গভীর রাতে ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তফা কামালের নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্যরা সিংচাপুর এলাকায় তার অবস্থান সনাক্ত করে সেখানে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তার গ্রুপের সদস্যদের নিকট বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র রয়েছে বলে সে স্বীকার করে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আজ সোমবার ভোররাতে ছাতক থানার ওসি মোস্তফা কামালের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা গ্রেফতারকৃত ডাকাত লক্ষণদ্দরকে সাথে নিয়ে বোকারভাঙ্গা এলাকায় অস্ত্র উদ্ধারে গেলে তার সহযোগি ১০/১২জন ডাকাতদল আগ্নেয়ান্ত্র নিয়ে পুলিশের উপর গুলিবর্ষণ শুরু করে। এ সময় গ্রেফতারকৃত ডাকাত লক্ষণদ্দর পালিয়ে গেলে পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ শুরু করে। ডাকাতদের গুলিতে ৫ পুলিশ সদস্য গুরুতর আহত হয়। পরবর্তীতে ডাকাতদল পালিয়ে গেলেও ৩ শত ফিট দূরে ডাকাত লক্ষণদ্দরের গুলিবিদ্ধ লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ। পরে নিহত ডাকাতের লাশ পুলিশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তফা কামাল গুলি বিনিময়ের ঘটনা ও ডাকাত গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহতের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

LEAVE A REPLY