কাজে ফিরলেন ইতালির ৪৫ লাখ মানুষ

9

করোনাভাইরাসের তান্ডবে বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে আমেরিকা, ইতালি, ব্রিটেন, স্পেন ও ফ্রান্স সহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ।

চীনের পরই প্রাণঘাতী এই ভাইরাস ধ্বংসযজ্ঞ চালাতে শুরু করে ইতালিতে। এখন পর্যন্ত (মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টা) দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ৭৯ জন মানুষের। আর আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ১১ হাজার ৯৩৮ জন।

দীর্ঘ দুই মাস ঘরবন্দি থাকার পর এবার বন্দি দশা থেকে কাজে ফিরেছেন ইতালির ৪৫ লাখ মানুষ। নির্মাণ শ্রমিকদের কাজের অনুমতি দেয়া হয়েছে। সেই সাথে আত্মীয়স্বজনও পুনরায় একসাথে মিলিত হতে পারছেন।

বন্ধু-বান্ধবদের এখনও একত্র হতে নিষেধ করা হয়েছে। অধিকাংশ দোকানপাট ১৮ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকছে। আর স্কুল-কলেজ, সিনেমা হল এবং থিয়েটারগুলো অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধই থাকছে।

ইতালির প্রধানমন্ত্রী গুসেপ কনটে বলেন, তার দেশ মহামারীর কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল।

গত সোমবার ইতালির পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রেও লকডাউন যথেষ্ট শিথিল করেছে। ওহিও ও অন্য আরও বেশ কিছু অঙ্গরাজ্য তাদের ব্যবসায়ীক কর্মকান্ড সহজতর করেছে। যদিও যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও নিহতের ঘটনা ঘটেছে। আক্রান্ত হয়েছে প্রাায় ১২ লাখ মানুষ এবং মারা গেছে ৬৮ হাজারের মতো।

LEAVE A REPLY